lifocyte.com

ক্যান্থারিস – এক ডোজের অবিশ্বাস্য ক্রিয়া [আমার অভিজ্ঞতা ]

ক্যান্থারিস

এটি আফ্রিকা মহাদেশের একপ্রকার মাছির মাথা থেকে তৈরি করা হয়। এর বিস্তারিত বর্ণনা মেটেরিয়া মেডিকায় ভরপুর করা আছে। ক্যান্থারিস মূত্র ও যৌনাঙ্গের উপর চমৎকার ক্রিয়া দর্শায়। আমি আমার ব্যক্তিগত কিছু অভিজ্ঞতার আলোকে ক্যান্থারিস এর প্রয়োগ পদ্ধতি ব্যাখ্যা করছি।

 ঘটনা -১

আমার বয়স যখন ১২/১৩ বছর তখন  একদিন প্রস্রাব  করার সময় প্রস্রাব  আসছিল না। কিন্তু প্রচন্ড কোথ আসত, আর জ্বালা অনুভূত হত। বাবর চেম্বারে গিয়ে বলার সাথে সাথে এক ফোঁটা  cantharis-২০০ দিলেন।  ২/৩ মিনিটের মধ্যেই প্রস্রাবের  চাপ এলো ; গরম হালাক লাল প্রস্রাব  করলাম ।  কিন্তু জ্বালা ও বেদনা কোথায় যে চলে গেলো বুঝতেই পারলাম না ।

বাবা সেদিন বলেছিলেন যদি কখনো এমন সমস্য হয় তবে যেন cantharis খাই । হ্যা , কয়েক বছর পরে এই একই সমস্য দুই / তিন বার  হয়েছিল। সর্বশেষ ১৯৯৮ সালে হয়েছিল, ঐ এক ডোজ cantharis -২০০।আলহামদুলিল্লাহ এর পর অদ্যবধি সমস্যা হয়নি ।

উল্লেখ্য এই একই সমস্যা মেয়েদের বেলায় কিন্তু  Borax  ভালো কজ করে।একমাত্র হোমিও মেডিসিনের এমন আশ্চর্য ক্রিয়া দেখে আমি মুগ্ধ ; আর তাই আজ আমি হোমিওপ্যাথ ।

 ঘটনা -২

এক ৫০ উর্ধ্ব  ব্যক্তির প্রস্রাবের দ্বার দিয়ে রক্ত পড়ছে , প্রচন্ড জ্বালা করছে, হাটতে  পারছে না ।

ঘরের মধ্যে থেকে হামাগুড়ি দিয়ে টয়লেটে যাচ্ছে ।রাতে জেলা মেডিকেলে  নেয়া সম্ভব না হওয়ায় অগত্য  হোমিওর স্মরণাপন্ন হয় ।

cantharis- ৩০ দেয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই রক্ত পরা ও জ্বালা বন্ধ হয়ে গেল ।

একডোজ ক্যন্থারিস মাদার টিংচার
 ঘটনা -৩

একদিন এক চেম্বারে বসে আছি আমার পরিচিত এক বড়ভাই আসলেন মটর  বাইকের গরম  সাইলেন্সার পাইপ আঙুলে লেগেছিল তখনো ফোসকা পড়েনি ।

২/৩ ফোটা  cantharis- মাদার লাগিয়ে দিলাম । উনি চলে গেলেন । পরে জানলাম কোন চিহ্নই নেই ।সেই দিন থেকে উনি হোমিওপ্যাথির ফ্যান হয়ে গেলেন।

 ঘটনা -৪

আমার হাতে একবার গরম তেল অনেক খানি যায়গায় পরেছিল একবার cantharis- মাদার লাগাইলাম ৩০ মিনিট পর আর একবার লাগাইলাম আলহামদুলিল্লাহ ফোস্কাত পরেনি এমনকি একটু জ্বালাও করেনি । তবে পবেরদিন দেখি সেই জায়গার চামড়ায়  একটু দাগ পড়েছে কয়েকদিন পর সেই  চিহ্ন চলে গেছে ।

 ঘটনা -৫

আমার এক ছাত্র বাইসাইকেল  ঝালায় করে রেখে দিছে  সে না বুঝে গরম অংশ দুই আঙুল দিয়ে ধরার সাথে সাথে পুরে যায় । আমার নিকট আসায় তাকে হাফড্রাম cantharis- মাদার দেই পরেরে দিন সে দেখায় তাঁর হাতে একটু দাগ ছিল কিন্তু জ্বালা বা ফোস্কা ছিল না কয়েকদিন পর দাহের চিহ্ন পর্যন্ত নেই । আজ বার্ণ উইনিটে লক্ষ্ লক্ষ লোক কাতরাচ্ছ অথচ এতো সুন্দর একটা ঔষধ আমাদের হাতে আছে । এরকম অনেক পোড়া রগিকে cantharis-মাদার দিয়ে যন্ত্রণা মুক্ত হতে দেখেছি ।

ঘটনা – ৬

একরোগী আসল গনোরিয়ার মারাত্মক অবস্থা, দুষিত সহবাস জনিত কারণ। লিঙ্গমুণ্ড ফেটে খুলে পরার ন্যায় অবস্থা আমি তাকে মেডোরিনাম -১এম দুই মাত্রা দেই সাথে ক্যান্থারিস মাদার টিংচার জল পট্টি দিতে দেই পরদিনেই সেই ফাটা অদৃশ্য হয়ে যায়।

 

এছাড়াও যে সকল ছেলে মেয়েরা কামোন্মত্ততা জনিত কারণে রাত্রে ঘুমাইতে পারে না।দুর্দমনীয়  কামভাবকে স্বাভাবিক করতে ক্যান্থারিস -২০০ সপ্তাহে এক ডোজ কয়েক সপ্তাহ সেবন করলে খুবই কার্যকর ।ক্যান্থারিস মাদার টিংচার মেয়েদের চরম যৌন উত্তেজনা বাড়িয়ে তোলে তাই এর মাদার না খাওয়ানই উত্তম।

সতর্কতাঃ

এই বর্ণনা পূর্নঙ্গ চিকিৎসা নির্দেশ করে না । এটা নতুন চিকিৎসকগণের দিক নির্দেশনা ও হোমিওপ্যাথির ক্রিয়া  সম্পর্কে অবহিত করণ মাত্র । কেউ এইটুকু পড়েই চিকিৎসা করবেন না , করলে তা নিজ দায়িত্বে  করতে হবে এবং এর জন্য আর্টিকেল লেখক দায়ভার নিবেন না । অর্গানন ছাড়া আর যাই হোন হোমিওপ্যাথি  না ।  মাটেরিয়া মেডিকা দেখে ক্যান্থারিস এর  বৈশিষ্ট্য আছে কি না তা যাচাই করে চিকিৎসা দেয়া কর্তব্য।  সঠিক  ঔষধ নির্বাচন করতে পারলে একডোজ মেডিসিনই যথেষ্ট। অভিজ্ঞ রেজিস্ট্রার্ড চিকিৎসকের পরামর্শ নিন সুস্থ থাকুন।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *