lifocyte.com

পালসেটিলা [ Pulsatilla] – রোগী নির্বাচনের সহজ কৌশল

পালসেটিলা [ Pulsatilla]

পালসেটিলা হোমিওপ্যাথির এক অমূল্য সম্পদ। সন্তান মাতৃগর্ভ থেকে শিশু, যুবা, বৃদ্ধা সকলের জন্য সমধিক প্রযোজ্য। অনেকেই pulsatilla কে মেয়েদের চিকিৎসা হিসেবে নিয়েছেন কিন্তু না অভিজ্ঞ চিকিৎসক জানেন এটি ছেলেদের ক্ষেত্রেও চমৎকার ক্রিয়া প্রকাশ কর। হোমিওপ্যাথি লক্ষণ ভিত্তিক চিকিৎসা বিজ্ঞান তাই এর লক্ষণ মিললে দুই/ চার মাত্রা পালসেটিলা অনেক জটিল রোগও সমূলে বিনাশ করে ফেলতে সক্ষম।

ছেলেদের চিকিৎসা

আমি অনার্স থার্ড ইয়ারে পড়ার সময় একদিন এক বন্ধু এলো একটি হোমিওড্রামের মুখে puls লেখা ছিল। সে প্রশ্ন করল এই ঔষধটা আমার নিকট আছে কি না। বললাম আছে।পুনঃ প্রশ্ন বল দেখি কি জন্য এটি খাচ্ছি? উত্তরে বললাম হোমিওতে লক্ষণ ভিত্তিক চিকিৎসা করা হয়।এটি দিয়ে অনেক রোগের চিকিৎসা সম্ভব। তবুও তার অনুরোধে বলতে বাধ্য হলাম তোমার মনে হয় হাইড্রাসিল হয়েছে। সে আশ্চর্য হয়ে গেল এবং মুগ্ধ হয়ে আমার নিকট পরবর্তী চিকিৎসা নিয়েছিল।

অজীর্ণতায় পালসেটিলা

বিয়ে বাড়ি বা অনুষ্ঠানে পোলাও মাংস খেয়ে আজীর্ণ হওয়া অগণিত রোগীকে পালসেটিলা ৩০/২০০ দ্বারা সুস্থ হতে দেখেছি। তার জন্য ছেলে / মেয়ে বা কেইস টেকিং এর প্রয়োজন পরে নি।

চোখের অঞ্জনিতে পালসেটিলা

চোখের অঞ্জনি চিকিৎসায় পালসেটিলা ঔষধ প্রায় অদ্বিতীয়। কয়েক মাত্রাতেই নির্মূল হতে দেখেছি। এক্ষেত্রে স্ট্যাফিস্যাগ কম নয়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে শান্ত-শিষ্ট,মেয়েলি স্বভাবের ছেলেদের(হিজরা নয়) জন্য খুবই কার্যকর। অনেকের অঞ্জনি পেকে ফেটে যেতে দেখেছি।কখনই শুরুতে ১এম বা ১০এম দিয়ে চিকিৎসা দিবেন না। প্রায় সকল অঞ্জনি ২০০ শক্তিতেই নির্মুল হয়।

মেয়েলি চিকিৎসা

ঋতু স্রাব, লিউকোরিয়া সহ জরায়ুর নানা প্রকার পীড়ায় পালসেটিলা একটি ঈর্ষনীয় ঔষধ। এছাড়াও গর্ভ সঞ্চার, মাতৃগর্ভে সন্তানের পজিশন ঠিক রাখতে অতুলনীয়।

পালসেটিলা ঔষধটি গর্ভস্থ ভ্রূণের অবস্থান পরিবর্তন করতে সক্ষমম। হিলাদের জীবনে সবচেয়ে বিপজ্জনক সময় হলো সন্তান প্রসব কাল এবং গভর্স্থ সন্তানের পজিশন ঠিক না থাকে। এক্ষেত্রে গভবর্তী মাতা এবং তার পেটের শিশু দুজনেরই মৃত্যুর ঝুকি বেড়ে যায়। কিন্তু পালসেটিলা খুব সহজেই এই ঝুকি কমিয়ে স্বাভাবিক প্রসব করিয়ে মায়েদের রক্ষা করতে পারে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, ভ্রুণের মেল-প্রেজেনটেশন ঠিক করার জন্যও রোগীর সামগ্রিক মনো-দৈহিক লক্ষণ সমষ্টির উপর ভিত্তি করে ঔষধ সিলেকশন করা উচিত এবং টোটাল সিম্পটমের ভিত্তিতে নির্বাচিত ঔষধ দেয়া কর্তব্য। তথাপি এক্ষেত্রে পালসেটিলাকে বলা যায় অনন্য।

পালসেটিলা ঔষধটি মূলত অনিয়মিত বা অপর্যাপ্ত প্রসব বেদনা নিয়মিত এবং বেগবান করে এবং প্রসবকার্য ত্বরান্বিত করে।

বোষ্টনের ডাঃ মার্সি বি. জ্যাকসন পালসেটিলার ব্রিচ, ভার্টেক্স, ট্রাঙ্ক, ফিট, ক্রশ, শোলডার প্রভৃতি অনাকাঙ্খিত অবস্থানকে (mal-presentation) পরিবর্তন করার ক্ষমতার ওপর সবচেয়ে বেশী গবেষণা করেছেন। তিনি এই সম্পর্কিত তিন শতাধিক ক্লিনিক্যাল অবজারভেশন লিপিবদ্ধ করে গেছেন। এছাড়াও ডাঃ ডডি, ডাঃ উডওয়ার্ড, ডাঃ মার্টিন, ডাঃ ক্যানিয়ন, ডাঃ ক্যান্ট, ডাঃ বেইলি, ডাঃ বাটলার প্রমূখ চিকিৎসক বৃন্দ তাদের অভিজ্ঞতার বর্ণনা লিখেছেন

তারা অধিকাংশ ক্ষেত্রেই পালসেটিলা -৩০ ব্যবহৃত করেছেন এবং প্রতি ডোজে ৫-৭ টি বড়ি ৩০মিনিট থেকে কয়েক ঘণ্টা পরপর হিসেবে প্রয়োগ করতেন।

প্রতিটি মেটেরিয়া মেডিকায় এর ভূয়সী প্রশংসায় ভরা। তাই আমি বিস্তারিত লিখলাম না। তবে অল্প কয়েকটি লক্ষণে কিভাবে পালসেটিলা রোগী নির্বাচন করবেন তার একটি চিত্র নিচে তুলে ধরলাম।

কয়েক বাক্যে পালসেটিলা
  • পরিবর্তনশীলতা(শারিরীক ও মানসিক)এমনকি রোগ ক্রমাগত স্থান ও রুপ পরিত্যাগ করে ।
  • নম্রতা ও ক্রন্দনশীলতা (রাগ আছে তবে বেশিক্ষণ ধরে রাখতে পারে না)। আবেগ প্রবন, অল্পতেই কেঁদে ফেলে
  • গাত্র সর্বদা উত্তপ্ত ও গরমে বৃদ্ধি । গরম-আলো-বাতাসহীন বদ্ধ ঘরে রোগীনী বিরক্ত বোধ করে।
  • কপালে হাত রাখিয়া চিৎ হইয়া শুইতে ভালবাসে ; বাম পার্শ চাপিয়া শুইতা পারে না।
  • যত ব্যথা তত শীত কিন্তু গরম সহ্য হয় না ।
  • রাত্রীর শুরুতে ঘুমে অস্থীর কিন্তু শেষ রাত্রে নিদ্রাহীনতা।
  • ম্যাজিক বাক্যঃ জিহ্বা ,ঠোঁট শুস্কতা সত্ত্বেও পানিপানে অনীহা । (তৃষ্ণাহীনতা) অর্থাৎ গলা শুকিয়ে থাকে কিন্তু কোন পানি পিপাসা থাকে না।

Heper sulph 3x
https://lifocytex.com/product/hepar-sulph-3x-হিপার-সালফ-৩এক্স-৫০-ট্য/

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *